ঢাকা, বৃহস্পতিবার   ২০ জুন ২০২৪ ||  আষাঢ় ৫ ১৪৩১

ময়মনসিংহ জেলার ভালুকায় জনপ্রিয় হয়ে উঠছে কেঁচো সার

নিউজ ডেস্ক

প্রকাশিত: ১৬:৪৫, ২৪ নভেম্বর ২০২৩  

ময়মনসিংহ জেলার ভালুকায় জনপ্রিয় হয়ে উঠছে কেঁচো সার

ময়মনসিংহ জেলার ভালুকায় জনপ্রিয় হয়ে উঠছে কেঁচো সার

ময়মনসিংহের ভালুকায় রাসায়নিক সারের ব্যবহার ছেড়ে ভার্মি কম্পোস্ট (কেঁচো সার) সারের দিকে ঝুঁকছেন কৃষকেরা। রাসায়নিক সারের ক্ষতিকারক দিক বিবেচনা করে উপজেলার কৃষকেরা এখন ব্যাপকহারে ভার্মি কম্পোস্ট সার ব্যবহার শুরু করেছেন। ফলে উপজেলার বিভিন্ন এলাকায় বাণিজ্যিক ভিত্তিতেও শুরু হয়েছে ভার্মি কম্পোস্ট বা কেঁচো সারের উৎপাদন।

জমিতে অতিমাত্রায় বালাইনাশক, আগাছানাশক, কৃত্রিম রাসায়নিক সার ব্যবহার করায় দিন দিন মাটির উর্বরতা শক্তি নষ্ট হয়ে জৈব পদার্থের পরিমাণ কমে যাচ্ছে। এখান থেকে বেরিয়ে আসতে ভূমিকা রাখছে কেঁচো সার। বালাইনাশক ও রাসায়নিক সার ব্যবহারে বিনষ্ট মাটির উর্বরতা শক্তি ফিরিয়ে আনতে সক্ষম এই ভার্মি কম্পোস্ট। এরই মধ্যে ভালুকার কৃষকরা কৃষি অফিসের সঙ্গে পরামর্শক্রমে ভার্মি কম্পোস্ট সার উৎপাদন শুরু করেছেন। তারা এসব উৎপাদিত সার নিজেদের জমিতে ব্যবহার করে ধান, পাট ও শাকসবজির প্রচুর ফলন পেয়েছেন। তাদের উৎপাদিত কম্পোস্ট সার ১২-১৪ টাকা দরে নিজের চাহিদা মিটিয়ে উপজেলার বিভিন্ন কৃষকদের কাছে বিক্রি করেন। এতে আর্থিকভাবে ব্যাপক লাভবান হচ্ছেন তারা।

স্থানীয় কৃষক জয়নাল আবেদীন জানান, কৃষি অফিসের পরামর্শ এবং উপসহকারী কৃষি কর্মকর্তা সাইদুল ইসলামের সার্বিক সহযোগিতায় আমরা ভার্মি কম্পোস্ট সার তৈরি করে বেশ লাভবান হচ্ছি।

নতুন কৃষি উদ্যোক্তা মিনার হোসেন বলেন, আমাদের বাড়ির ময়লা, গরুর গোবর আগে বিভিন্ন জায়গায় ফেলে রাখা হতো, এখন কৃষি অফিসের পরামর্শ নিয়ে জৈব সার তৈরি করছি, এতে নিজের সারের চাহিদা পূরণ করে অন্যের কাছে বিক্রি করা যাচ্ছে।

উপসহকারী কৃষি কর্মকর্তা সাইদুল ইসলাম জানান, কেঁচো সার ব্যবহারে মাটির জৈবশক্তি বৃদ্ধি পায় ও পিএইচ মান সঠিক মাত্রায় থাকে। এ ছাড়াও মাটির প্রকৃত গুণ রক্ষা করে, মাটির পানির ধারণক্ষমতা বৃদ্ধি করে। এতে কৃষকের চাষ খরচ অনেক কম হয়, ফসলের ফলন বৃদ্ধি ও পুষ্টিগুণ বৃদ্ধি করে।
আমাদের পরামর্শ অনুযায়ী কৃষকরা নিজেদের জমিতে ভার্মি কম্পোস্ট ব্যবহার করছে, এতে কৃষকরা ব্যাপক ভাবে লাভবান হচ্ছে।

উপজেলা কৃষি কর্মকর্তা জেসমিন জাহান বলেন, রাসায়নিক সারের পাশাপাশি আমরা কৃষক দের জৈব সার ব্যবহার করতে উদ্বুদ্ধ করছি 'মাটির ভৌত এবং জৈব গুণাবলি উন্নতিকরণের জন্য ভার্মি কম্পোস্ট সারের গুরুত্ব অপরিসীম। কেঁচো সার অল্প খরচে উৎপাদন করা যায়। কেঁচো সার জমিতে ব্যবহার করলে মাটির স্বাস্থ্য ভালো থাকে। আমরা কৃষকদের সার্বিক ভাবে সহযোগিতা করে যাচ্ছি।

   

সারাদেশ বিভাগের সর্বাধিক পঠিত
সর্বশেষ
জনপ্রিয়