ঢাকা, শুক্রবার   ২১ জুন ২০২৪ ||  আষাঢ় ৮ ১৪৩১

যৌথ অভিযানকে বিতর্কিত করতে ফেসবুকে কুকি চিন ন্যাশনাল ফ্রন্টের অপপ্রচার

নিউজ ডেস্ক

প্রকাশিত: ১২:০৯, ১১ জুন ২০২৪  

যৌথ অভিযানকে বিতর্কিত করতে ফেসবুকে কুকি চিন ন্যাশনাল ফ্রন্টের অপপ্রচার

যৌথ অভিযানকে বিতর্কিত করতে ফেসবুকে কুকি চিন ন্যাশনাল ফ্রন্টের অপপ্রচার

পাহাড়ে শান্তি ফেরাতে যৌথ অভিযানে বেকায়দায় থাকা কেএনএফ সন্ত্রাসীরা সেনাবাহিনীকে নিয়ে একের পর এক গুজব ছড়াচ্ছে। মানবাধিকার লঙ্ঘনের কথা বলে সামাজিক মাধ্যমে নিত্যনতুন গুজব অপপ্রচার করছে কেএনএফ সন্ত্রাসীদের মিডিয়া উইং।কুকি চিন ন্যাশনাল ফ্রন্টের অফিসিয়াল ফেসবুক থেকে নিয়মিত সেনাবাহিনী, পুলিশ, গণমাধ্যম ও রাষ্ট্র ব্যবস্থার নানা বিষয়াদি নিয়ে উদ্দেশ্যপ্রণোদিতভাবে মিথ্যাচার করছে এই সন্ত্রাসী সংগঠনের মিডিয়া উইং। কখনও নিরীহ পাহাড়িদের ধরে নিয়ে যাওয়ার অভিযোগ, কখনও কেএনএফ সন্ত্রাসীকে ফুটবলার বা স্কুলছাত্র বানানোর অপচেষ্টায় লিপ্ত তারা।

শুধু তাই নয়, ৭১ টিভি’র উদ্যোগে অনুষ্ঠিত “অশান্ত পাহাড়ি জনপদঃ সহিংসতা বনাম সম্প্রীতি” শীর্ষক আলোচনায় অংশ নেওয়া ব্রিগেডিয়ার জেনারেল (অব.) শাখাওয়াত হোসেন ও অধ্যাপক ড. মেসবাহ কামালের মতো ব্যক্তিত্বদের নিয়ে মিথ্যাচার করতে দ্বিধাবোধ করছে না কেএনএফ মিডিয়া উইং। মূলত, সেনাবাহিনীর নেতৃত্বে চলমান যৌথ অভিযানকে বিতর্কিত করাই তাদের মূল লক্ষ্য।

সম্প্রতি বান্দরবানে ব্যাংক ডাকাতি, ম্যানেজারকে অপহরণ, অস্ত্র লুটের ঘটনার পর সেনাবাহিনীর নেতৃত্বে এই সন্ত্রাসী গোষ্ঠীর বিরুদ্ধে যৌথ অভিযানে নামে আইনশৃঙ্খলা বাহিনী। এই অভিযান শুরুর পর থেকেই সেনাবাহিনীকে নিয়ে বিভ্রান্তিকর অপপ্রচারে নামে কেএনএফ সন্ত্রাসীরা। কারণ, এ পর্যন্ত বিপুল পরিমাণ অস্ত্র ও গোরাবারুদসহ শতাধিক কেএনএফ সন্ত্রাসীকে গ্রেপ্তার করেছে আইনশৃঙ্খলা বাহিনী। যাতে করে ব্যাকফুটে রয়েছে এই সন্ত্রাসীরা। তাই সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে একের পর এক অপপ্রচার করছে সন্ত্রাসী সংগঠনটির মিডিয়া উইং।

এদিকে সেনাবাহিনীর নেতৃত্বে পরিচালিত যৌথ অভিযানকে স্বাগত জানিয়েছে পাহাড়ের মানুষ। কেএনএফ সন্ত্রাসীদের গ্রেপ্তার করায় সন্তুষ্টি প্রকাশ করেছেন তারা। আর অন্যদিকে এ অভিযানকে প্রশ্নবিদ্ধ করতে অপপ্রচার করছে এই সন্ত্রাসীরা।

সে কারণেই বিশ্লেষকরা বলছেন, সেনাবাহিনীর কাজ দেশের সার্বভৌমত্ব রক্ষা করা, মানবাধিকার লঙ্ঘন করা নয়। পাহাড়ে যৌথবাহিনীর অভিযান শুধুমাত্র কেএনএফ সন্ত্রাসীদের বিরুদ্ধে। কেননা সন্ত্রাসীদের প্রতিহত করলেই শান্তি ফিরবে পাহাড়ে।

রাজনীতি বিভাগের সর্বাধিক পঠিত
সর্বশেষ
জনপ্রিয়