ঢাকা, বুধবার   ১৭ এপ্রিল ২০২৪ ||  বৈশাখ ৪ ১৪৩১

পুরোনো ভিডিও আর গ্রাফিক্সের কাজ দিয়ে ’ডয়েচে ভেলে’র এ কেমন অনুসন্ধান!

অনলাইন ডেস্ক

প্রকাশিত: ১১:৩৫, ৬ এপ্রিল ২০২৩  

ছবি: সংগৃহীত

ছবি: সংগৃহীত

র‌্যাব এবং র‌্যাবের কর্মকাণ্ড নিয়ে সামাজিক মাধ্যমে একটি ভিডিও ঘুরে বেড়াচ্ছে। যেটা নির্মাণ করেছে বাংলাদেশ থেকে বিতাড়িত সাংবাদিক তাসনিম খলিল। আর তার সঙ্গে যোগ দিয়েছে জার্মানভিত্তিক সংবাদমাধ্যম ডয়েচে ভেলে। কিন্তু ওই ভিডিও দেখার পর চলছে তীব্র সমালোচনা। কেউ কেউ বলছেন- গ্রামের চাচাতো ভাইকে দিয়ে এরকম অনুসন্ধানী (!) ভিডিও বানানো সম্ভব!

কিন্তু কথা হলো- কি আছে ওই ভিডিওতে? ওই ভিডিওতে আছে এক একটি ফোনকল রেকর্ড। আছে বন্দুকযুদ্ধে মাদক ব্যবসায়ীর পরিবারের সদস্যদের কথা, গ্রাফিক্স দিয়ে সাজানো নাম-পরিচয়হীন দুজন র‌্যাবের কথা, সেই সঙ্গে বিভিন্ন স্থানের ফুটেজ। যা আমরা সাধারণ কোথাও ঘুরতে গেলে স্মৃতি হিসেবে নিয়ে থাকি। সাধারণ মানের স্ক্রিপ্ট লিখে শুধু র‌্যাবকে দোষারোপ করা হয়েছে ওই ভিডিওতে। গায়ের জোরে কাউকে দোষারোপ করতে গেলে যা করতে হয় ওই ভিডিওতে র‌্যাবকে ঘিরে তাই করা হয়েছে।

ডয়েচে ভেলের এমন প্রশবিদ্ধ অনুসন্ধান নিয়ে নানা প্রশ্ন রেখেছেন বিজ্ঞজনরা। তারা বলছেন, ডয়চে ভেলের মতো আন্তর্জাতিক গণমাধ্যম কীভাবে এতো মামুলি অনুসন্ধানী করলো? কোনো তথ্য-উপাত্ত ও প্রমাণ ছাড়া কোনো কর্তৃপক্ষের বক্তব্য ছাড়া, কিভাবে পরিপূর্ণ হলো ওই রিপোর্ট? স্টেজ পারফরম্যান্স করিয়ে গ্রাফিক্সের মাধ্যমে কিছু কাল্পনিক কাহিনী লিখে সেটাকে অনুসন্ধানী বললো! ভারতীয় দক্ষিণের মালায়লাম বা তামিল সিনেমায় এর চেয়ে ভালো স্ক্রিপ্ট ও কাহিনী দেখা যায়।

যেখানে বাংলাদেশ থেকে সন্ত্রাস ও জঙ্গিবাদ নির্মূলে সবচেয়ে বেশি অবদান র‌্যাবের। সেখানে ওই রিপোর্টের কোথাও র‌্যাবের অবদানের কথা লেখা নেই। বলা হয়নি র‌্যাবের দুঃসাহসী অভিযানের কথা। র‌্যাব সদস্যদের ত্যাগ ও জীবন দানের কথাও বলেনি তারা।

এ বিষয়ে অধ্যাপক এ আরাফাত বলেন, মূলত বাংলাদেশ এখন বিশ্ব রাজনীতির অংশ হয়ে উঠেছে। মেরুকরণ বিশ্বে বাংলাদেশকে কোলে টানতে অনেক দেশ অনেক টোপ দিচ্ছে। কিন্তু স্বনির্ভর বাংলাদেশ এখন সে সবের দিকে নজর দেয় না। তাই বাংলাদেশকে এবং বাংলাদেশের অহংকারের জায়গাগুলোকে প্রশ্নবিদ্ধ করতেই এসব ডকুমেন্টারি প্রকাশ করছে। সত্যতা নিশ্চিতের চেয়ে উসকে দেওয়ায় তাদের মূল লক্ষ্য। শান্তি বজায় রাখতে ওই সব রিপোর্ট বিশ্বাস না করাই উত্তম হবে।

রাজনীতি বিভাগের সর্বাধিক পঠিত
সর্বশেষ
জনপ্রিয়