ঢাকা, সোমবার   ২৭ মে ২০২৪ ||  জ্যৈষ্ঠ ১৩ ১৪৩১

এক ধাক্কায় ২৫ টাকা কমেছে পেঁয়াজের দাম!

নিউজ ডেস্ক

প্রকাশিত: ১৭:১৯, ৫ জুন ২০২৩  

এক ধাক্কায় ২৫ টাকা কমেছে পেঁয়াজের দাম!

এক ধাক্কায় ২৫ টাকা কমেছে পেঁয়াজের দাম!

অস্বাভাবিক দাম বৃদ্ধির কারণে আজ থেকে পেঁয়াজ আমদানির অনুমতি দিয়েছে কৃষি মন্ত্রণালয়। এ খবরেই পাইকারি বাজারে এক ধাক্কায় ২৫ টাকা পর্যন্ত পেঁয়াজের দাম কমেছে বলে জানা গেছে।

বেশ কিছুদিন ধরেই দেশের পেঁয়াজের বাজার অস্থির। পেঁয়াজ উৎপাদন করে কৃষক যাতে ক্ষতিগ্রস্ত না হয়, সেজন্য কৃষকের স্বার্থ সুরক্ষায় বিগত ১৫ মার্চ থেকে পেঁয়াজ আমদানির অনুমতি বন্ধ রাখা হয়েছিল। এরপর থেকেই বাড়তে থাকে মসলাজাতীয় এ পণ্যের দাম। 
 
রমজানের ঈদের আগেও যে পেঁয়াজ ৪০ টাকা কেজি দরে বিক্রি হয়েছে, তা বাড়তে বাড়তে রাজধানীর কারওয়ান বাজারে রোববারও কেজিতে সেঞ্চুরি ছুঁয়েছিল। তবে লাগামহীন বাজার নিয়ন্ত্রণে আমদানি অনুমতির খবরে কমতে শুরু করেছে দাম। 

দেশের সবচেয়ে বড় পাইকারি বাজার চট্টগ্রামের খাতুনগঞ্জে মার্চে প্রতি কেজি পেঁয়াজ ৩০ টাকা থেকে ৩৫ টাকা ছিল। আমদানির অনুমতির আগে অর্থাৎ রোববার সকাল পর্যন্ত এ বাজারে ৯২ টাকা থেকে ৯৫ টাকা কেজি দরে বিক্রি হয় পেঁয়াজ। ক্ষেত্র বিশেষে তা ১০০ টাকা কেজিতেও বিক্রি হয়েছে। তবে আমদানির অনুমতির পরপরই দাম কমতে থাকে। এ বাজারে সোমবার প্রতি কেজি পেঁয়াজের দর ২০ থেকে ২৫ টাকা পর্যন্ত কমেছে। বর্তমানে প্রতি কেজি পেঁয়াজ ৭০ থেকে ৭২ টাকা কেজি দরে বিক্রি হচ্ছে।
 
পেঁয়াজের পাইকারি ব্যবসায়ীরা জানান, আমদানির অনুমতি দেওয়ার পর থেকে পাবনা, ফরিদপুর, কুষ্টিয়ায় কৃষক পর্যায়ে পেঁয়াজের দাম পড়ে যায়। যার প্রভাব পড়েছে খাতুনগঞ্জেও। বাজারে ভারতীয় পেঁয়াজ প্রবেশ শুরু হলে দাম আরো কমবে। তখন পেঁয়াজের দাম আগের পর্যায়ে নেমে আসবে। 
  
আমদানির খবরে দিনাজপুরের হিলিতেও কমেছে পেঁয়াজের দাম। কেজি প্রতি পেঁয়াজের দাম কমেছে ১০ থেকে ১৫ টাকা পর্যন্ত। বর্তমানে প্রতি কেজি পেঁয়াজ ৭০ টাকা থেকে ৭৫ টাকা দরে বিক্রি হচ্ছে।
 
সকালে সরেজমিনে হিলি বাজার ঘুরে দেখা যায়, আড়তগুলোতে পেঁয়াজের পর্যাপ্ত মজুত থাকলেও, আগের তুলনায় ক্রেতা কমেছে। গত শনিবার এই বাজারে প্রতি কেজি পেঁয়াজ বিক্রি হয়েছে ৮০ থেকে ৮৫ টাকায়। সেই পেঁয়াজ সোমবার সকালে বিক্রি হচ্ছে মানভেদে ৭০ থেকে ৭৫ টাকা দরে। 
 
হিলি বাজারের ব্যবসায়ী ফারুক হোসেন বলেন, পেঁয়াজ আমদানির খবরে পাইকারি বাজারে দাম কমছে। আমরা আজ ৭০ থেকে ৭৫ টাকা কেজিতে পেঁয়াজ বিক্রি করছি। তবে ক্রেতা তুলনামূলক কম।’
 
আমদানি খবরে রাজধানীর বাজারেও পড়েছে প্রভাব। কারওয়ান বাজারের ব্যবসায়ীরা জানান, বর্তমানে প্রতি কেজি পেঁয়াজ ৮৫ থেকে ৯০ টাকা দরে বিক্রি হচ্ছে। তবে আমদানি শুরু হলে দাম আরো কমবে।
 
এদিকে ক্রেতারা জানান, বাজার সিন্ডিকেটের কারণে প্রতিনিয়তই কোনো না কোনো পণ্যের দাম বাড়ছে। এটি নিয়ন্ত্রণ না করা গেলে ভোক্তারা ভুক্তভোগী হতেই থাকবেন আর এক শ্রেণি ব্যবসাই করে যাবে।  
  
প্রসঙ্গত, দেশের বাজারে পেঁয়াজের দাম অস্বাভাবিকভাবে বেড়ে যাওয়ায় সীমিত আয়ের, শ্রমজীবী মানুষের কষ্ট লাঘবসহ ভোক্তাদের স্বার্থরক্ষায় পেঁয়াজ আমদানির অনুমতি (আইপি) দেওয়ার সিদ্ধান্ত নেয় কৃষি মন্ত্রণালয়। রোববার এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে কৃষি মন্ত্রণালয় জানায়, সোমবার থেকে পেঁয়াজ আমদানির অনুমতি দেওয়া হবে।

ব্যবসা বাণিজ্য বিভাগের সর্বাধিক পঠিত
সর্বশেষ
জনপ্রিয়