ঢাকা, মঙ্গলবার   ২৯ নভেম্বর ২০২২ ||  অগ্রাহায়ণ ১৪ ১৪২৯

বঙ্গবন্ধু কন্যা সুদক্ষ পরিচালনায় দেশকে এগিয়ে নিয়ে যাচ্ছেন: মতিয়া চৌধুরী

অনলাইন ডেস্ক

প্রকাশিত: ২০:২৯, ১ অক্টোবর ২০২২  

ছবি: সংগৃহীত

ছবি: সংগৃহীত

বঙ্গবন্ধু কন্যা শেখ হাসিনা সুদক্ষ পরিচালনায় বাংলাদেশকে এগিয়ে নিয়ে যাচ্ছেন বলে মন্তব্য করেছেন আওয়ামী লীগের সভাপতিমণ্ডলীর সদস্য বেগম মতিয়া চৌধুরী।

আওয়ামী লীগ সভাপতি ও প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার জন্মদিন উপলক্ষ্যে আজ শনিবার বঙ্গবন্ধু এভিনিউস্থ আওয়ামী লীগের কেন্দ্রীয় কার্যালয়ে বাংলাদেশ কৃষক লীগ আয়োজিত আলোচনা সভায় তিনি এ কথা বলেন।   

মতিয়া চৌধুরী বলেন, স্বজন হারানোর বেদনা চাপা দিয়ে শেখ হাসিনা ঝড়-বৃষ্টি-আঁধার রাতে ফিরে এসেছিলেন। তার সুদক্ষ পরিচালনায় বাংলাদেশকে এগিয়ে নিয়ে যাচ্ছেন। তিনি বঙ্গবন্ধুর অসমাপ্ত কাজ বাস্তবায়ন করছেন। 

তিনি বলেন, অন্ধকার দূর হবে ও আলোর বিচ্ছুরণ হবে- এই হল শেখ হাসিনার জন্মের তাৎপর্য। নেত্রীর স্বদেশ প্রত্যাবর্তনে আমাদের একটাই স্বপ্ন এবং উদ্দেশ্য ছিল আমরা শেখ হাসিনাকে এনে জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের শূন্যতা কিছুটা পূরণ করবো। 

কৃষক লীগের সভাপতি সমীর চন্দের সভাপতিত্বে আলোচনা সভা ও দোয়া মাহফিল এবং কৃষকের মাঝে কৃষি উপকরণ বিতরণ অনুষ্ঠানে আওয়ামী লীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক  আ ফ ম বাহাউদ্দিন নাছিম, কৃষক লীগের সহ-সভাপতি শরীফ আশরাফ আলী ও হোসনে আরা এমপি, যুগ্ম-সাধারণ সম্পাদক বিশ্বনাথ সরকার বিটু ও শামীমা শাহরিয়ার এমপি, সাংগঠনিক সম্পাদক কৃষিবিদ ড. মুহাম্মদ হাবিবুর রহমান প্রমুখ বক্তব্য রাখেন। অনুষ্ঠান পরিচালনা করেন কৃষক লীগের সাধারণ সম্পাদক উম্মে কুলসুম স্মৃতি এমপি। 

কৃষিবিদ আ ফ ম বাহাউদ্দিন নাছিম বলেন, শেখ হাসিনা আলোকবর্তিকা হিসেবে আবির্ভূত হয়েছেন। বাংলাদেশের মানুষের অধিকার আদায়ে দেশের দরিদ্র ও প্রান্তিক জনগোষ্ঠীকে জাগরিত করে নানা রকমের হামলা জয় করে দীর্ঘ লড়াই সংগ্রামের মাধ্যমে স্বৈরাচার সরকারের পতন করে বাংলাদেশকে একটি অসাম্প্রদায়িক রাষ্ট্র ও উন্নয়নের রোল মডেল হিসেবে বিশ্ব দরবারে প্রতিষ্ঠিত করেছেন। 

তিনি বলেন, বিএনপি-জামাত বাংলাদেশ-কে পাকিস্তানী ভাবার্দশে একটি সাম্প্রদায়িক বাংলাদেশ বানাতে চায়। পাকিস্তান প্রেমী মির্জা ফখরুল এবং তারেক জিয়া’রা বাংলাদেশকে পাকিস্তান বানানোর ষড়যন্ত্র শুরু করেছে। আমরা ১৬ কোটি মানুষ এবং আওয়ামী লীগের সকল সংগঠনকে সাথে নিয়ে এই ষড়যন্ত্রের মোকাবেলা করব।

সভা শেষে প্রধানমন্ত্রীর সুস্বাস্থ্য ও দীর্ঘায়ু কামনা করে দোয়া মাহফিল এবং কৃষকের মাঝে কৃষি উপকরণ বিতরণ অনুষ্ঠান অনুষ্ঠিত হয়।

সর্বশেষ
জনপ্রিয়