ঢাকা, সোমবার   ৩০ জানুয়ারি ২০২৩ ||  মাঘ ১৬ ১৪২৯

কিশোরগঞ্জের ভৈরবে ১৬৫ শিক্ষার্থীর জিপিএ ৫, পাশের হার সন্তোষজনক

নিউজ ডেস্ক

প্রকাশিত: ১৭:৫৪, ২৮ নভেম্বর ২০২২  

কিশোরগঞ্জের ভৈরবে ১৬৫ শিক্ষার্থীর জিপিএ ৫, পাশের হার সন্তোষজনক

কিশোরগঞ্জের ভৈরবে ১৬৫ শিক্ষার্থীর জিপিএ ৫, পাশের হার সন্তোষজনক

ভৈরব থেকে এবার এসএসসি পরীক্ষায় ১৬৫ জন শিক্ষার্থী এ প্লাস পেয়েছে। এতে সন্তোষ প্রকাশ করেছেন উপজেলা প্রশাসনসহ শিক্ষক, শিক্ষার্থীরা।
জানা যায়, ভৈরবে ১ হাজার ৭০০ শিক্ষার্থী এবার এসএসসি পরীক্ষায় অংশগ্রহণ করেন। এর মধ্যে উত্তীর্ণ হয়েছে ১ হাজার ৫০৫ জন ও জিপিএ ৫ পেয়ে উত্তীর্ণ হয়েছে ১৬৫ জন।
এ বিষয়ে সন্তোষ প্রকাশ করে উপজেলা নির্বাহী অফিসার মোহাম্মদ সাদিকুর রহমান সবুজ বলেন, করোনাকালীন বিভিন্নভাবে শিক্ষা প্রতিষ্ঠান বন্ধ থাকায় ফলাফল সন্তোষজনক হলেও ছাত্র-ছাত্রীদের ঠিকমতো পড়ায় মনোযোগী করা যায়নি। শিক্ষা প্রতিষ্ঠান খোলা থাকলে প্রাতিষ্ঠানিক নজরধারীতে আরো ভালো ফলাফল করতে পারতো শিক্ষার্থীরা। তবে এখন এই স্বাভাবিক অবস্থায় ফলাফল সন্তোষজনক এবং আগামী দিনে শিক্ষার্থীদের আরো প্রাতিষ্ঠানিক নজরধারীতে আরো ভালো ফলাফল হবে আশা করছি ইনশাল্লাহ।
উপজেলা মাধ্যমিক শিক্ষা অফিস সূত্রে জানা যায়, ভৈরব সরকারি কাদির বক্স পাইলট মডেল হাই স্কুল থেকে ৩৮৯ জন পরীক্ষার্থী অংশগ্রহণ করে পাশ করেছে ৩৫০ জন। এর মধ্যে জিপিএ ৫ পেয়েছে ৫৩ জন।
কমলপুর হাজী জহির উদ্দিন উচ্চ বিদ্যালয় থেকে ২২৭ জন পরীক্ষার্থী অংশগ্রহণ করে পাশ করেছে ২০২ জন। এর মধ্যে জিপিএ ৫ পেয়েছে ৩০ জন।
বাংলাদেশ রেলওয়ে উচ্চ বিদ্যালয় থেকে ২৩৬ জন পরীক্ষার্থী অংশগ্রহণ করে পাশ করেছে ২১৩ জন। এর মধ্যে জিপিএ ৫ পেয়েছে ২২ জন।
ভৈরব পৌর পাইলট বালিকা উচ্চ বিদ্যালয় থেকে ৯৯ জন পরীক্ষার্থী অংশগ্রহণ করে পাশ করেছে ৮২ জন। এর মধ্যে জিপিএ ৫ পেয়েছে ১৫ জন।
হাজী ইউসুফ আলী উচ্চ বিদ্যালয় থেকে ১৮১ জন পরীক্ষার্থী অংশগ্রহণ করে পাশ করেছে ১৬২ জন। এর মধ্যে জিপিএ ৫ পেয়েছে ১৩ জন।
মুর্শিদ মুজিব উচ্চ বিদ্যালয় থেকে ১৬১ জন পরীক্ষার্থী অংশগ্রহণ করে পাশ করেছে ১২১ জন। এর মধ্যে জিপিএ ৫ পেয়েছে ৮ জন।
আফছর উদ্দিন উচ্চ বিদ্যালয় থেকে ৪৭ জন পরীক্ষার্থী অংশগ্রহণ করে পাশ করেছে ৪১ জন। এর মধ্যে জিপিএ ৫ পেয়েছে ৯ জন।
কালিকাপ্রসাদ উচ্চ বিদ্যালয় থেকে ১৪৫ জন পরীক্ষার্থী অংশগ্রহণ করে পাশ করেছে ১২১ জন। এর মধ্যে জিপিএ ৫ পেয়েছে ৩ জন।
জিল্লুর রহমান স্কুল এন্ড কলেজ থেকে ৮২ জন পরীক্ষার্থী অংশগ্রহণ করে পাশ করেছে ৭০ জন। এর মধ্যে জিপিএ ৫ পেয়েছে ৬ জন।
যোগেন্দ্র চন্দ্র উচ্চ বিদ্যালয় থেকে ৬৮ জন পরীক্ষার্থী অংশগ্রহণ করে পাশ করেছে ৬৩ জন। এর মধ্যে জিপিএ ৫ পেয়েছে ৬ জন।
কালিপুর উচ্চ বিদ্যালয় থেকে ৯৪ জন পরীক্ষার্থী অংশগ্রহণ করে পাশ করেছে ৮০ জন।

সর্বশেষ
জনপ্রিয়