ঢাকা, শনিবার   ০১ অক্টোবর ২০২২ ||  আশ্বিন ১৬ ১৪২৯

ইপিজেডে রেকর্ড বিনিয়োগ

বাণিজ্য ডেস্ক

প্রকাশিত: ১৭:০৮, ২২ সেপ্টেম্বর ২০২২  

ইপিজেডে রেকর্ড বিনিয়োগ

ইপিজেডে রেকর্ড বিনিয়োগ

গত ২০২১-২২ অর্থবছরে দেশের রপ্তানি প্রক্রিয়াকরণ এলাকাগুলোতে (ইপিজেড) বিনিয়োগে নতুন রেকর্ড হয়েছে। ওই অর্থবছরে ৪০ কোটি ৯৮ লাখ ডলারের বিনিয়োগ এসেছে ইপিজেডগুলোতে, যা কোনো একক অর্থবছর হিসেবে এ যাবৎকালের সর্বোচ্চ। এর আগে ২০১৪-১৫ অর্থবছরে বিনিয়োগ হয়েছিল ৪০ কোটি ৬৪ লাখ ডলারের। গত অর্থবছরে ইপিজেডে আসা বিনিয়োগ আগের অর্থবছরের তুলনায় ২০ দশমিক ২৬ শতাংশ বেশি।

এ ছাড়া গত অর্থবছরে দেশের আট ইপিজেড থেকে রপ্তানিও সর্বোচ্চ পর্যায়ে পৌঁছেছে। ৮৬৫ কোটি ৫৯ লাখ ডলারের রপ্তানি আয় হয়েছে গত অর্থবছরে। এটি আগের অর্থবছরের তুলনায় ৩০ দশমিক ৪১ শতাংশ বেশি। এর আগে সর্বোচ্চ রপ্তানি ছিল ২০১৮-১৯ অর্থবছরে। ওই অর্থবছরে ৭৫২ কোটি ৪১ লাখ ডলারের রপ্তানি আয় করে ইপিজেডের প্রতিষ্ঠানগুলো। বাংলাদেশ রপ্তানি প্রক্রিয়াকরণ এলাকা কর্তৃপক্ষ (বেপজা) সূত্রে এসব তথ্য জানা গেছে।

বেপজার কর্মকর্তারা বলেন, করোনার কারণে দেশের ব্যবসা-বাণিজ্য ও বিনিয়োগ মারাত্মকভাবে ব্যাহত হয়। তবে ইপিজেডের প্রতিষ্ঠানগুলো করোনার প্রভাব কাটিয়ে উঠতে পেরেছে। রপ্তানি আয়েও তারা মাইলফলকে যেতে পেরেছে। বেড়েছে বিনিয়োগের পরিমাণ।

বেপজার নির্বাহী চেয়ারম্যান মেজর জেনারেল আবুল কালাম মোহাম্মদ জিয়াউর রহমান বলেন, বিনিয়োগবান্ধব নীতিমালা, শ্রমবান্ধব পরিবেশ ও প্রণোদনার কারণে রপ্তানি ও বিনিয়োগ বেড়েছে। ব্যবসা করার সহজ সব পদ্ধতি বিদ্যমান থাকায় বেপজার ইপিজেডে আগ্রহী হচ্ছেন বিনিয়োগকারীরা।

গত অর্থবছরে ৮ কোটি ৮৯ লাখ ডলার বিনিয়োগ এসেছে চট্টগ্রাম ইপিজেডে। এ ছাড়া ঢাকা ইপিজেড ৭ কোটি ১০ লাখ, আদমজী ইপিজেড ৭ কোটি, কুমিল্লা ইপিজেড ৬ কোটি ৭৫ লাখ, কর্ণফুলী ইপিজেড ৪ কোটি ৫১ লাখ, ঈশ্বরদী ইপিজেড ৪ কোটি ২৮ লাখ, মোংলা ইপিজেড ১ কোটি ৮৭ লাখ এবং উত্তরা ইপিজেডে ৫২ লাখ ডলারের বিনিয়োগ এসেছে।

সর্বশেষ
জনপ্রিয়